শিরোনাম:
ঢাকা, রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
Songjog24
রবিবার ● ১৬ জুন ২০১৯
প্রচ্ছদ » চায়ের কাপে ভোটের কথা » নির্বাচনী আমেজ নেই রাখাইন পল্লীতে
প্রচ্ছদ » চায়ের কাপে ভোটের কথা » নির্বাচনী আমেজ নেই রাখাইন পল্লীতে
২৮৪ বার পঠিত
রবিবার ● ১৬ জুন ২০১৯
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

নির্বাচনী আমেজ নেই রাখাইন পল্লীতে

মহিউদ্দিন অপু,নিজস্ব প্রতিবেদক:

---তালতলী উপজেলা বাংলাদেশের বরিশাল বিভাগের বরগুনা জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা ও বরগুনা জেলার সর্বশেষ উপজেলা। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুসারে ৬ মে ২০১০ তারিখে আমতলী উপজেলা ভেঙ্গে তালতলীকে উপজেলা হিসাবে ঘোষনা করা হয় । বঙ্গোপসাগরের তীরবর্তী হওয়ায় তলতলী প্রকৃতিকভাবেই সমৃদ্ধ। এখানে রয়েছে সৃজিত বন, আশার চর, ফাতরার বন, সোনাকাটা সমুদ্র সৈকত, রাখাইন পল্লী ইকোপার্ক, শুভসন্ধ্যা সমুদ্রসৈকত প্রভৃতি। সড়ক পথ এবং নদী পথে যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছ।

২৫৮.৯৪ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের এই উপজেলার পশ্চিমে বুড়িশ্বর নদী ও বরগুনা সদর উপজেলা। পূর্বে আন্ধারমানিক নদী ও পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলা। দক্ষিণে টেংরাগিরি বন ও বঙ্গোপসাগর এবং উত্তরে কচুপাত্রা ও পচাঁকোড়ালিয়া নদী ও আমতলী উপজেলা। ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী এখানকার লোকসংখ্যা ৮৮,০০৪ জন। যাদের ৪৩,৭০৭ জন পুরুষ ও ৪৪,২৯৭ জন মহিলা। এখানকার জনঘনত্ব ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ৫৪১ জন। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৫৭,৭৮২ জন যার মধ্যে পুরুষ ভোটার ২৮,৫৩৮ জন ও মহিলা ভোটার ২৯,২৪৪ জন। থানা ১ টি। ইউনিয়ন ৭ টি (পঁচাকোড়ালিয়া, ছোটবগী,  কড়ইবাড়ীয়া, শারিকখালী, বড়বগী, নিশানবাড়ীয়া এবং  সোনাকাটা)। কলেজ ২ টি। মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৯ টি। প্রাথমিক বিদ্যালয় ৭০ টি। মাদরাসা ১২টি। এখানে ২০ শয্যা বিশিষ্ট একটি সরকারী হাসপাতাল রয়েছে। এছাড়াও ১ টি বেসরকারী ক্লিনিকও আছে। হাট-বাজার ১৩ টি। আশ্রয়ণ প্রকল্প ৫ টি। ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র ৪৮ টি।

তালতলী উপজেলার ভোটারদের একটি অংশ রাখাইন সম্প্রদায়। বাংলাদেশে রাখাইনদের বসবাস প্রায় দুই থেকে আড়াইশ বছর ধরে। এখানকার রাখাইন সম্প্রদায়ের লোকেরা মিয়ানমারের একটি জাতিগত গোষ্ঠী। তালতলী উপজেলার কবিরাজপাড়া, তালতলীপাড়া, আগাঠাকুরপাড়া, তাঁতিপাড়া, মনুখাপাড়া, মোমেষেপাড়া, ঠংপাড়া, লাউপাড়া, ছাতনপাড়া, তালুকদারপাড়া, বড় অংকুপাড়া, ছোটো অংকুপাড়া ও সওদাগর পাড়ায় রাখাইন সম্প্রদায়ের ১৩টি পল্লী রয়েছে। এসব পল্লীতে বসবাস করছেন প্রায় ২ হাজার রাখাইন।

উপজেলা নির্বাচন-২০১৯ এর ৫ম ধাপে আগামী ১৮ জুন তালতলী উপজেলা পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উপজেলাজুড়ে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। তবে তেমন একটা নির্বাচনী আমেজ নেই এখানকার রাখাই পল্লীগুলোতে। খেনচিন, মাংফো, খেনচো, তোতান, খেনচিসহ বেশকয়েকজন স্থানীয় রাখাইনদের সাথে কথা বললে তারা জানান তাদের প্রত্যাশা একটি সুষ্ঠু সুন্দর নির্বাচন হবে এখানে। সুষ্ঠু নির্বাচনের সাথে সাথে রাখাইন উপাসনালয় নির্মান, রাখাইনদের নিজস্ব ভাষায় শিক্ষাব্যবস্থা, তাঁতশিল্প উন্নয়ন ও তাদের বসবাসের নিরাপত্তাসহ বেশকিছু দাবির কথাও তুলে ধরেন তালতলীর বিভিন্ন এলাকার রাখাইনরা।



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)