শিরোনাম:
ঢাকা, সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
Songjog24
শুক্রবার ● ২৩ এপ্রিল ২০২১
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক » লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ১২০ অভিবাসীর মৃত্যুর আশঙ্কা
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক » লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ১২০ অভিবাসীর মৃত্যুর আশঙ্কা
৯৪ বার পঠিত
শুক্রবার ● ২৩ এপ্রিল ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, ১২০ অভিবাসীর মৃত্যুর আশঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

---

লিবিয়া উপকূলে গতকাল বৃহস্পতিবার ডুবে যাওয়া একটি রাবারের তৈরি নৌকার কাছে ১০টি লাশ চিহ্নিত করা হয়েছে। নৌযানটিতে প্রায় ১৩০ অভিবাসী ছিল। এ নৌকা ডুবির ঘটনায় কমপক্ষে ১২০ জন অভিবাসীর মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

একটি উদ্ধারকারী সংস্থা জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার বেশ কয়েকজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নৌকাটিতে প্রায় ১৩০ জন আরোহী ছিলেন। এখন পর্যন্ত ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হলেও জীবিত কাউকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে নৌকার আরোহীরা সবাই প্রাণ হারিয়েছে।

ইউরোপীয় মানবিক গ্রুপ এসওএস মেডিটারানিয়ান জানায়, লিবিয়া উপকূলে আন্তর্জাতিক জলসীমায় চরম দুর্দশার মুখে পড়া তিনটি নৌকার উপস্থিতির ব্যাপারে তাদেরকে গত মঙ্গলবার অবহিত করা হয়। স্বেচ্ছাভিত্তিক পরিচালিত মেডিটারানিয়ান উদ্ধার হটলাইন অ্যালার্ম ফোনের মাধ্যমে তাদেরকে বিষয়টি অবহিত করা হয়। তখন ভাড়া করা জাহাজের পাশাপাশি এনজিও’র ওশান ভিকিং জাহাজও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার মধ্যে ওই এলাকা অভিমুখে রওনা দেয়। ওই উপকূলে ছয় মিটার উচ্চ সামুদ্রিক ঢেউ রয়েছে।

তল্লাশি এবং উদ্ধার সংস্থার সমন্বয়কারী লুইসা আলবেরা বলেন, কয়েক ঘণ্টার তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযানের পর আমাদের আশঙ্কাই সত্যি হলো। বুধবার সকালে ওই অভিবাসীদের বহনকারী নৌকাটি যাত্রা শুরু করেছিল বলে জানানো হয়।

তিনি বলেন, আমরা খুব ব্যথিত। যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের পরিবার এবং স্বজনদের করা ভেবে খুব দুঃখ হচ্ছে। নৌকায় থাকা লোকজনকে আরও আগে উদ্ধারের চেষ্টা করলে হয়তো বাঁচানো সম্ভব হতো। কিন্তু সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষ সঠিক সময়ে এগিয়ে না আসার কারণেই এই অসহায় মানুষগুলো হয়তো সাগরে ডুবেই মারা গেল।

একটি সংস্থা বলছে, লিবিয়ার কোস্ট গার্ড অভিবাসীদের উদ্ধারে এগিয়ে আসেনি এবং উদ্ধারকারী দলকেও কোনো ধরনের সহায়তা করেনি। তারা সারারাত ভরে শতাধিক অভিবাসীকে এভাবে সাগরের পানিতে ভেসে থাকতে বাধ্য করেছে। যার পরিণতিতে এসব মানুষ প্রাণ হারিয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবারের এই দুর্ঘটনা ছাড়াই চলতি বছর ভূমধ্যসাগরে ডুবে ৩৫০ জনের বেশি শরণার্থীর মৃত্যু হয়েছে। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা জানিয়েছে, গত সপ্তাহে একটি শিশুসহ কমপক্ষে ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আফ্রিকান অভিবাসীদের বহনকারী একটি নৌকা ইউরোপের দিকে যাত্রা করলে এটি তিউনিসিয়া উপকূলে ডুবে যায়।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)