শিরোনাম:
ঢাকা, শনিবার, ৮ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮
Songjog24
সোমবার ● ২৯ জুন ২০২০
প্রচ্ছদ » প্রধান খবর » জিবরান : দ্যা প্লেবয় অব সাইলেন্ট রোমান্টিসিজম
প্রচ্ছদ » প্রধান খবর » জিবরান : দ্যা প্লেবয় অব সাইলেন্ট রোমান্টিসিজম
২১০ বার পঠিত
সোমবার ● ২৯ জুন ২০২০
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

জিবরান : দ্যা প্লেবয় অব সাইলেন্ট রোমান্টিসিজম

ফাইজুল ইসলাম ফাহিম :

---‘A word I want to see written on my grave : I am alive like you, and I am standing beside you. Close your eyes and look around, you will see me in front of you.’ কাহলিল জিবরানের এপিটাফে লেখা তার প্রিয় উক্তি। জিবরান, আরবিতে কাহলিল জিবরান। পুরো পৃথিবী তাকে কাহলিল জিবরান নামে চিনে।

১৮৮৩ সালের ৬ জানুয়ারি, লেবানানের উত্তরে বাশরি শহরে এক স্বল্পবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।বালক জিবরান বড় হন মুসলিম ও খ্রিষ্টধর্মের আবহে।

ইংরেজি ও আরবি দুই ভাষাতেই লিখতেন জিবরান। আরব বিশ্বে তাঁকে সাহিত্য ও রাজনৈতিক বিদ্রোহী হিসেবে দেখা হয়। আধুনিক আরবি সাহিত্যের রেনেসাঁয় তাঁর রোমান্টিক ধারা ধ্রুপদী ধারা থেকে আলাদাভাবে জায়গা করে নিয়েছে, বিশেষ করে তাঁর গদ্য কবিতা। লেবাননে তিনি এখনো সম্মানিত হন সাহিত্যের বীর হিসেবে।

জীবন আর প্রকৃতির নিগূঢ় সব সত্যের এক অনন্য পরিদর্শক আরব সাহিত্যে আধুনিকতার অন্যতম এই রূপকার। ইংরেজিভাষী বিশ্বে তিনি মূলত পরিচিত ১৯২৩ সালের বই ‘দ্য প্রফেটে’র কারণে। তাঁর বইটি ১৯৩০-এর দশকে বেশ জনপ্রিয়তা পায়। ১৯৬০-এর দশকেও তা জনপ্রিয় ছিল।

১৯০৪ সালে তার প্রথম চিত্র প্রদর্শনী প্রদর্শিত হয় বোস্টনে, ফ্রেড ডে-এর স্টুডিওতে। এরপরই চার দিকে ছড়িয়ে পড়ে চিত্রশিল্পী হিসেবে জিবরানের নাম-ডাক। এ প্রদর্শনীতে জিবরানের সাথে প্রথম সাক্ষাৎ ও পরিচয় হয় মেরি এলিজাবেথ হ্যাস্কেলের। মেরি হ্যাস্কেল ছিলেন স্থানীয় একটি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা। মেরির সাথে অচিরেই গড়ে ওঠে জিবরানের বন্ধুত্ব। মেরির আগ্রহে এক সময় এই সম্পর্ক বন্ধুত্ব থেকে প্রেমে গড়ায়, তবে প্রেম ছিল অনেকটা একতরফা। মেরি বিভিন্ন সময় জিবরানকে বিয়ে করতে চেয়েছেন।

কিন্তু বারবার জিবরান তাকে ফিরিয়ে দিয়েছেন এই বলে, ‘আমি বিবাহযোগ্য নই।’ তথাপি, মেরি হ্যাস্কেল নিজের টাকায় জিবরানকে দুই বছরের জন্য প্যারিস পাঠিয়েছিলেন বিশ্ববিখ্যাত ফরাসি ভাস্কর ও চিত্রশিল্পী, অগস্ত রোদ্যাঁ-এর (১৮৪০-১৯১৭) সাথে থেকে আর্ট শেখার জন্য। জিবরানের শিল্পীজীবন ও তার সফলতার ওপর মেরি হ্যাস্কেলের অবদান ও প্রভাব খুবই বেশি। জিবরানের প্রতি মেরির প্রেম পরিণতি না পেলেও তাদের মধ্যকার গভীর বন্ধুত্ব নিখুঁতভাবেই বহাল ছিল জিবরানের মৃত্যু পর্যন্ত।

জিবরানের কালজয়ী উক্তি

১ ) অনেক নারীই পুরুষের হৃদয়কে ধার করে এবং সামান্য কিছু নারীই তা অধিকারে রাখতে পারে ।

২ ) যখন একজন পুরুষের হাত একজন নারীর হাত স্পর্শ করে তখন প্রকৃত অর্থে তারা দুজনেই স্পর্শ করে অনন্তের হৃদয় ।

৩ ) প্রেমিক ও প্রেমিকার মাঝখানে ভালবাসা হল অবগুণ্ঠন ।

৪ ) প্রত্যেক পুরুষই দুজন নারীকে ভালবাসে । একজন হল তার কল্পনার সৃষ্টি এবং অন্যজনের এখনো জন্ম হয়নি ।

৫ ) পুরুষ নারীর ছোটখাটো ত্রুটিকেও ক্ষমা করে না , তেমনি উপভোগ করে না নারীর সদগুণ গুলো ।

৬ ) তুমি যদি তোমার অধিকারে থাক তাহলে অবশ্যই দাবী করার কিছু নেই ।

৭ ) ভালবাসা প্রতিদিন ভালবাসা নবায়ন করে না , যা পরিণত হয়েছে অভ্যাসে এবং এর উল্টো দিকেই রয়েছে দাসত্ব ।

৮ ) ভালবাসা হচ্ছে আলোর একটি শব্দ , লেখা হয়েছে আলোর হাতে , আলো নির্মিত কাগজের উপর ।

৯ ) যাকে তুমি ভালবাস , তুমি তার একজন দাস । কারণ তুমি তাকে ভালবাস এবং একজন দাস ভালবাসে তোমাকে কারণ সে ভালবাসে তোমাকে ।

১০ ) তোমার মন বা আমার হৃদয় কখনোই একমত হবে না যতক্ষণ তোমার মন সংখ্যার ভেতরে এবং আমার হৃদয় ধোঁয়াশার ভিতরে বসবাস করা থেকে বিরত না হয় ।

১১ ) একজন নারী তার মুখের হাসি দিয়েই অবগুণ্ঠন তৈরি করতে পারে ।

১২ ) আমাদের মন হচ্ছে একটা স্পঞ্জ এবং হৃদয় হচ্ছে স্রোতধারা । এতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই আমাদের অধিকাংশই দৌড়ানোর চেয়ে শোসন করতে পছন্দ করে।

১৩ ) নিশ্চিত আনন্দের আকাঙ্ক্ষা হচ্ছে বেদনার একটি অংশ এবং এটা বিস্ময়কর।

১৪ ) জীবন যখন তার হৃদয়ের কথা বলার জন্য একজন গায়ক খুঁজে পায় না তখন সে উপস্থিত করে একজন দার্শনিক কে তার মনের কথা বলতে।

ইংরেজিভাষী বিশ্বে তিনি মূলত তার ১৯২৩ সালের বই দ্য প্রফেটের কারণে পরিচিত। তার বইটি ১৯৩০ এর দশকে বেশ জনপ্রিয়তা পায়। ১৯৬০ এর দশকেও তা জনপ্রিয় ছিল। উইলিয়াম শেক্সপিয়ার ও লাউযির পর জিবরান তৃতীয় বহুল বিক্রিত বইয়ের কবি।

সাহিত্যকর্ম

কাহলিল জিবরান ( ১৮৮৩-১৯৩১) এর সাহচর্যে জীবনের অর্থ বদলে যায় মুহূর্তে, বদলে যায় পৃথিবীর রঙ।

বারবারা ইয়ং ( জিবরানের ভক্ত ও তার জীবনী “The man from Lebanon” এর লেখক) কে একবার জিবরান জিজ্ঞেস করলেন, যদি শুধু সাতটি শব্দ ছাড়া বাকী সব শব্দ তোমাকে ভুলে যেতে হবে, কোন সাতটি শব্দ মনে রাখবে? ইয়ং ৫ টি শব্দ বলেন- ইশ্বর, জীবন, ভালোবাসা, সৌন্দর্য, পৃথিব। একই প্রশ্ন যখন জিবরান কে করা হল। জিবরান উত্তর দিলেন, প্রথমেই যে দুটো সবচেয়ে জরুরী শব্দ মনে রেখে দিবো তা হলো ‘তুমি’ আর ‘আমি’ জিবরান অবিবাহিত ছিলেন। একবার তাকে জিজ্ঞেস করা হল ‘আপনি প্রেমে পড়েন নি কোনদিন?’। জিবরানের উত্তর, ‘যারা গড়েছেন কিছু, তা সে কবিই হোন বা স্থপতি হোন, চিত্রকর বা গায়ক হোন…. সবাই ভালোবাসায় আক্রান্ত। শুরু থেকে এই ই হয়ে আসছে। পৃথিবীতে ভালোবাসা বা যৌনতা সবচেয়ে সুন্দর আর মহার্ঘ দান। ভালোবাসা সুন্দর চিরকাল; ভালোবাসা সবসময় ই নীরব।’

দ্যা প্রফেট থেকে ৮ টা উক্তি দিয়ে দিচ্ছি যারা এখন ও বইটা পড়েননি তাদের পড়তে উৎসাহিত করার জন্য-

১. বাস্তবিক, জীবন মানেই অন্ধকার;

যদি না জীবনে থাকে প্রবল তাড়না।

সমস্ত তাড়না অন্ধ; যদি না প্রমায় যুক্ত থাকে

সমস্ত প্রমাই অর্থহীন; যদি না শুদ্ধ হয় কাজে

সমস্ত কর্মই শূন্যতার; যদি না যুক্ত থাকে প্রেমে;

এবং যখনই প্রেমে কাজ করো তখনই বাধতে পারো নিজেকে নিজের সঙ্গে, পরস্পরে,

ইশ্বরেরও সাথে।

২. কাজ হল মূর্তিমতি ভালোবাসা

৩. মৃত্যুর অনুভব বাস্তবিক চাও যদি

হৃদয় বিছিয়ে দাও জীবনের দেহে।

কেননা জীবন ও মৃত্যু এক, যেমন ওতপ্রোত নদী ও সাগর।

৪. দুঃখ যত গাঢ়ভাবে অন্তর খুড়ে দেবে, ততো সুখ ধরবে তাতে।

৫. ফলের কাছে দেওয়াটাই জীবনধারণ, যেমন গ্রহণ করা শিকরের তীব্র প্রয়োজন।

৬. হায়, চিরকাল এই সত্য ভালোবাসা নিজেই জানে না, গভীর সে কতোখানি- যতক্ষণ বিচ্ছেদ না আসে..

৭. দূরে না গেলে কেউ কি কাছের হয় কোনোদিন?

৮. ঘুমের মধ্যে দেখা যে স্বপ্নকে মনেই পড়ে না, সেই স্বপ্ন ই কি বানিয়ে তোলেনি তোমাদের নগর, গড়ে নি তার ভেতরের সবকিছু?

প্রিয় লেখক কবি কহলিল জিবরানের আরও কিছু প্রিয় উক্তি

“One day you will ask me which is more important? My life or yours? I will say mine and you will walk away not knowing that you are my life.”

“If you love somebody, let them go, for if they return, they were always yours. And if they don’t, they never were.”

“No human relation gives one possession in another—every two souls are absolutely different. In friendship or in love, the two side by side raise hands together to find what one cannot reach alone.”

“Generosity is giving more than you can, and pride is taking less than you need.”

“When love beckons to you, follow him,

Though his ways are hard and steep.

And when his wings enfold you yield to him,

Though the sword hidden among his pinions may wound you.

And when he speaks to you believe in him,

Though his voice may shatter your dreams as the north wind lays waste the garden.” –from THE PROPHET (1923)

“The deeper sorrow carves into your being, the more joy you can contain.” –from THE PROPHET (1923)

“Yesterday is but today’s memory and tomorrow is today’s dream.”

–from THE PROPHET (1923)

“Trust in dreams, for in them is hidden the gate to eternity.”

উল্লেখযোগ্য রচনাসমূহ - দ্য প্রফেট, ব্রোকেন উইংস, ম্যাডম্যান ইত্যাদি।

কহলিল জিবরান মাত্র ৪৮ বছর বয়সে ১০ই এপ্রিল ১৯৩১ মারা যান।

লেখাটি লিখতে Greatest works of Kahlil Zibran, অনুবাদক মোস্তফা মীর ও বিভিন্ন ব্লগ এর সাহায্য নেয়া হয়েছে।

অপু / ১১ : ১০ পিএম 



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)